কার্টুন ভিডিও তৈরি করুন মোবাইল দিয়ে

এখন বর্তমানে কার্টুন ভিডিও তৈরি করুন মোবাইল দিয়ে। বর্তমানে এটা কি সম্ভব? – হ্যাঁ অবশ্যই সম্ভব, বর্তমানে এটা সম্ভব। কারন বর্তমান সময়ে খুব সহজেই মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করা সম্ভব।

তবে আপনাদের প্রশ্ন হলো, কিভাবে কার্টুন ভিডিও তৈরি করা যায়? কিভাবে কার্টুন ভিডিও তৈরি করব? এবং কার্টুন ভিডিও তৈরি করার অ্যাপস কোন গুলো?

কিভাবে কার্টুন ভিডিও তৈরি করবেন তা বিস্তারিত আমরা আলোচনা করব, কোনগুলো অ্যাপস দিয়ে কার্টুন ভিডিও করবেন তা সব বলব একটু ধৈর্য্য ধরুন আর মনোযোগ দিয়ে পোস্ট টি ভালোভাবে পড়ুন?

শুনুন, এগুলো তেমস কোনো বিষয় না। আপনি যদি একটু চেস্টা করেন, কারণ আপনি যদি একটু চেষ্টা করে দেখেন তাহলে অবশ্যই আপনিও কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে পারবেন ৷

তাহলে আপনি ২ বা ৩ দিনের মধ্যে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার নিয়ম গুলো বুঝতে পারবেন। আর সে কারনেই মূলত আপনার মতো এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা খুব সহজেই তাদের পছন্দমতো কার্টুন ভিডিও তৈরি করে আসছে।

আর এটা তো আমরা সবাই জানি যে, প্রায় সব বয়স এর মানুষরা কার্টুন ভিডিও দেখতে পছন্দ করে থাকে। কার্টুন এখন সবার কাছে জনপ্রিয় হয়ে আছে?


আর সে কারনেই একটা কথা প্রচলিত আছে। সেটি হলো, শিশু থেকে ৮০, আমরা সবাই কার্টুন দেখতে ভালো বাসি। আর এই ভালোবাসা থেকেই মূলত আপনার অবশ্যই কার্টুন ভিডিও তৈরি করা উচিত।

তবে সবচেয়ে মজার বিষয় হলো আজকের দিনে এমন অনেক এপস ডেভলপার এসেছেন। যাদের তৈরি করা Android Apps গুলোর মাধ্যমে আপনি মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

শুধু তাই নয়, আপনি যদি সঠিকভাবে মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে পারেন। তাহলে কিন্তুু আপনার অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করারও একটা বিশাল সুযোগ থাকবে।

কেননা, আপনি যদি দর্শক এর মান অনুযায়ী Cartoon Video Make করতে পারেন। তাহলে অনলাইন প্লাটফর্মে আপনার তৈরি করা কার্টুন ভিডিও গুলোতে অনেক পরিমানে ভিউ আসবে

আর যখন আপনার তৈরি করা এসব Cartoon Video তে প্রচুর পরিমানে ভিউ আসবে। তখন আপনার অনলাইন থেকে আয় করারও নানা রকম রাস্তা খুলে যাবে।

তো এইসব বিষয় গুলো নিয়ে পর্যায় ক্রমে আলোচনা করবো। তবে সবার আগে আপনাকে জেনে নিতে হবে কার্টুন ভিডিও কিভাবে তৈরি করা হয়। এবং আপনি যদি এই কাজটি সফলভাবে করতে চান।

তাহলে কার্টুন ভিডিও কিভাবে তৈরি করবেন। সে নিয়ে একটা পরিস্কার ধারনা নিতে হবে। চলুন তাহলে একেবারে মূল আলোচনা তে ফিরে যাওয়া যাক।

কার্টুন ভিডিও কি?

আমরা তো সবাই কমবেশি Cartoon দেখি। এখন আপনাকে যদি প্রশ্ন করা হয় যে, বলুন তো কার্টুন ভিডিও কাকে বলে? তাহলে এই প্রশ্নের উওরে আপনি কি বলবেন? থাক আপনাকে বলতে হবে না, বরং আমিই আপনাকে বিষয়টা ক্লিয়ার করে দেই।

আমরা আমাদের চারপাশে যে সব অবজেক্ট গুলো দেখতে পাই। তার সিমিলার অবয়ব গুলোকে যখন আপনি চিএ কর্মের মাধ্যমে প্রকাশ করবেন।

তখন তাকে সাধারন ভাবে বলা হবে কার্টুন ভিডিও। কিন্তুু শুধুমাএ কোনো অবজেক্টকে চিএকর্মের মাধ্যমে প্রকাশ করলেই তা সম্পূর্ণ রুপে কার্টুনে পরিনত হবে না।

কারন, কার্টুন কখনও স্থায়ী চিএের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে না। যদি তাই হতো, তাহলে প্রত্যেকটা পিকচার কে কার্টুন হিসেবে বিবেচনা করা হতো।

বরং সেগুলো কে Animated করে জীবন্ত প্রতিচ্ছবি তৈরি করা মাধ্যমে কোনো একটি বিষয় কে প্রকাশ করতে হবে।

কেন কার্টুন ভিডিও তৈরি করবেন?

আপনি ভালো করেই জানেন যে, প্রত্যেকটা কাজের পেছনে কোনো না কোনো উদ্দেশ্য থাকে। ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যদি কার্টুন ভিডিও তৈরি করেন। তাহলেও কিন্তুু এখানে কিছু না কিছু উদ্দেশ্য থাকবে।

আর সেই উদ্দেশ্য গুলো নিয়ে এবার আমি আপনাকে স্বল্প আকারে ধারনা দেয়ার চেস্টা করবো। তো আপনি সেই উদ্দেশ্য গুলো জানতে চাইলে অবশ্যই এবারের আলোচনা গুলো একটু মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

তো এমন অনেক কারন আছে, এমন অনেক উদ্দেশ্য আছে। যেগুলোর জন্য আপনার অবশ্যই কার্টুন ভিডিও তৈরি করা উচিত। যেমনঃ

০১| নিজের শখ পূরন করার জন্য কার্টুন ভিডিও তৈরি

আমাদের মধ্যে এমন অনেক মানুষ আছেন। যাদের বিভিন্ন ধরনের শখ রয়েছে। ঠিক তেমনি ভাবে অনেকের কার্টুন ভিডিও তৈরি করার শখ থাকতে পারে।

কেননা, মনের ভাব প্রকাশ করার অনেক গুলো মাধ্যম থাকতে পারে। তবে তার মধ্যে অন্যতম একটি মাধ্যম হলো Animation এর মাধ্যমে নিজের মনের ভাব কে প্রকাশ করা।

আরো পড়ুন..

অনলাইন জব ২০২২: ঘরে বসে ১৩টি সেরা জব করুন

মোবাইল দিয়ে অনলাইনে ইনকাম করার কয়েক টি সহজ উপায় | Dailytk.com

ফেসবুক থেকে আয় ২০২১: ফেসবুকে কিভাবে ইনকাম করা যায়

কেননা, আপনি আপনার কল্পনার বস্তু গুলোকে প্রকাশ করতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই এই কাজটি করতে পারবেন এই কার্টুন ভিডিও তৈরি করার মাধ্যমে।

কারন, এই সেক্টরটি এতোটাই উন্নত। যার মাধ্যমে শুধুমাএ কয়েকটি ধাপ অনুসরন করার মাধ্যমে একেবারে জীবন্ত প্রতিচ্ছবি প্রকাশ করা যাবে।

০২| অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য কার্টুন ভিডিও তৈরি

আপনি কি জানেন, বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে প্রচুর পরিমানে টাকা আয় করা যায়?- যদি না জেনে থাকেন তাহলে আমার ওয়েবসাইট এর অন্যান্য আর্টিকেল গুলো দেখে নিবেন।

কেননা, ঐসব আর্টিকেল এ আমি অনলাইন থেকে আয় করার সমস্ত খুটিনাটি বিষয় গুলোর স্টেপ বাই স্টেপ আলোচনা করেছি।

আর এই অনলাইন থেকে আয় করার অন্যতম একটি মাধ্যম হলো কার্টুন ভিডিও তৈরি করা।

হয়তবা এই কথাটি শুনে আপনার অবিশ্বাস হতে পারে। কিন্তুু আমার কথাটি যে ধ্রুব সত্যে। সে বিষয়ে আমি একেবারে শতভাগ নিশ্চিত।

উদাহরন হিসেবে আপনি যদি ইউটিউব এর দিকে নজর দেন। তাহলে আপনি দেখতে পারবেন যে, যারা মূলত Cartoon Video নিয়ে কাজ করে।

তাদের ভিডিও গুলো তে হিউজ পরিমানে ভিউ হয়ে থাকে।

আর আপনি তো ভালোভাবেই জানেন যে, ইউটিউব এর যে ভিডিও গুলো তে বেশি পরিমানে ভিউ হয়। সেই Video গুলো থেকে প্রচুর পরিমান টাকা ইনকাম করা যায়।

মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে পারবেন কি?

বর্তমান সময়ে মোবাইল ইউজার এর সংখ্যা বেশি। এটা তো আমরা সবাই জানি। এখন এইসব মোবাইল ইউজার এর মনে একটি কমন প্রশ্ন জেগে থাকবে।

তা হলো মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও বানাতে পারবেন কি? – এবার আমি সে বিষয় নিয়ে একটু বিস্তারিত আলোচনা করবো।

আশা করি এই ছোট্ট আলোচনার মাধ্যমে এই বিষয়টি বেশ ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন। তো অনেক আগে থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য কম্পিউটারে অনেক ধরনের সফটওয়্যার রয়েছে।

যেগুলোর মাধ্যমে আপনি অনেক প্রফেশনাল মানের Cartoon Animation ভিডিও তৈরি করতে পারবেন। কিন্তুু যারা মোবাইল ব্যবহার করে। তাদের জন্য কি এমন কোনো Cartoon Video Maker Apps আছে।

যেগুলোর মাধ্যমে আপনিও বেশ মানসম্মত ভাবে কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে পারবেন? -তাহলে শুনুন,

পূর্বের দিনের এন্ড্রয়েড ফোন গুলো এতোটা আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন ছিলো না। যতোটা আপনি আজকের দিনে দেখতে পাচ্ছেন।

আর সেই সাথে বর্তমানের Android Version গুলো কে এতোটাই উন্নত ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। যার মাধ্যমে আপনি অনেক বড় বড় কাজ গুলো মোবাইল ফোন দিয়েই করতে পারবেন।

কেননা, আজকের দিনে এমন অনেক মানুষ আছেন। যারা মূলত তাদের মোবাইল ফোন দিয়েই অনেক ভালো মানের কার্টুন ভিডিও তৈরি করে আসছে।

তাই আপনার যদি একান্তই এই এনিমেশন টাইপ ভিডিও তৈরি করার ইচ্ছা থাকে। তাহলে আপনি খুব সহজেই মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

কিভাবে মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করা যায়?

উপরের আলোচনায় আমি মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার বিষয়টা বেশ ভালোভাবে আলোচনা করেছি।

তো সেই বিষয় গুলো জানার পর আপনার মনে আরও একটি প্রশ্ন জাগবে। সেটি হলো কিভাবে আপনি মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করবেন।

তো কম্পিউটার দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার সময় যেমন আপনার বিভিন্ন ধরনের Cartoon Maker Software এর প্রয়োজন হবে।

ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যখন মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করবেন ৷ তখনও কিন্তুু আপনার বিভিন্ন ধরনের Cartoon Maker Apps For Android এর প্রয়োজন হবে।

শুধু তাই নয়, আপনি যেসব কার্টুন ভিডিও তৈরি করার এপস আপনার ফোনে ইনষ্টল করবেন ৷ সেগুলো কে কিভাবে ব্যবহার করতে হবে।

সেই এপস গুলো তে কি কি পদ্ধতি অনুসরন করতে হবে। এই যাবতীয় বিষয়াদি গুলো সম্পর্কে আপনার পূর্নাঙ্গ ধারনা থাকতে হবে।

তবে আজকের এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনি শুধু মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার এপস গুলোর সাথে পরিচিত হতে পারবেন ৷

কিন্তুু কিভাবে এই এপস গুলো কে ব্যবহার করতে হবে। সে সম্পর্কে অন্য কোনো আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করবো।
মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার সেরা অ্যাপ

উপরের মূল্যবান আলোচনা থেকে আপনি এমন অনেক অজানা বিষয় সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

যেমন, কিভাবে কার্টুন ভিডিও তৈরি করবেন, কেন আপনার কার্টুন ভিডিও তৈরি করা উচিত।

এবং সবশেষে আপনি জানতে পেরেছেন যে, মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করা যায় কিনা।

তো যদি আপনি উপরোক্ত আলোচনা গুলো ভালো ভাবে পড়ে থাকেন।

তাহলে আমার বিশ্বাস যে আপনার এই বিষয় গুলো সম্পর্কে একটা ক্লিয়ার ধারনা চলে এসেছে। এবার আপনি আলোচনার মূল টপিকে ফিরে এসেছেন।

কেননা, এবার আপনি জানতে পারবেন যে কার্টুন ভিডিও তৈরি মোবাইল দিয়ে করার জন্য কি কি Cartoons Maker Apps এর প্রয়োজন হবে। তাহলে আর দেরী কেন?

চলুন এবার সেই মূল টপিকে ফিরে যাওয়া যাক।

Cartoon Video Maker Apps For Android Mobile

তো এবার আমি আপনাকে বেশ কিছু অসাধারন Android Apps এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো।

যে এপস গুলোর মাধ্যমে আপনিও অনেক সুন্দর সুন্দর কার্টুন ভিডিও মোবাইল দিয়ে তৈরি করতে পারবেন। যেমনঃ

০১| Plotagon Story

মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য অসাধারন ফিচার সমৃদ্ধ একটি এপস হলো Plotagon Story.

যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই যে কোনো ধরনের মানসম্মত কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

সত্যি বলতে আমি নিজেও কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য Plotagon Story ব্যবহার করে থাকি।

কেননা, এই এপসে আমি যত প্রকার ফিচার দেখেছি। তা অন্যান্য কোনো এপসে নেই। তাছাড়া মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য যে যে Feature থাকার প্রয়োজন।

তার প্রায় সব গুলোই উক্ত এপস এর মধ্যে বিদ্যমান রয়েছে। তাছাড়া এই এপসটি কে এমন ভাবে ডিজাইন করা হয়েছে।

যার ফলে আপনার যদি কার্টুন ভিডিও তৈরি করার বিষয়ে কোনো প্রকার পূর্ব ধারনা না থাকে।

তাহলেও কিন্তুু আপনি খুব সহজেই এই এপসের মাধ্যমে মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

এখন হয়তবা আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে যে, কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য এই এপসে কি কি ফিচার রয়েছে।

তো এবার সে সম্পর্কে একটু ধারনা নেয়া যাক। Plotagon Story নামক কার্টুন ভিডিও তৈরি করার এপসটি তে আপনি অনেক রকমের ফিচার দেখতে পারবেন। যেমনঃ

  1. Custom Character
  2. New Background Scene
  3. Character Emotions
  4. Import Audio
  5. Import Image
  6. Custom Dialogue
  7. Multi Language

তো এই ফিচার গুলো ছাড়াও আপনি এমন অনেক ধরনের আপডেট ফিচার দেখতে পারবেন। যেগুলো আপনার মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে অনেক খানি সহায়তা করবে।

আর যখন আপনি এই এপস টি ব্যবহার করবেন। তখন এর সুবিধা গুলো আপনি নিজেই দেখতে পারবেন।

Exta: যখন আপনি এই এপস এর সকল ফিচার গুলো ব্যবহার করতে যাবেন। তখন কিন্তুু আপনাকে Paid Apps টি ব্যবহার করতে হবে। কেননা, এই এপস এর দুটো ভার্সন রয়েছে।

এখন আপনি Free Version এর এপস টি ব্যবহার করেন। তাহলে কিন্তুু আপনি খুব বেশি একটা ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন না।

কিন্তুু যদি আপনি Paid Version ব্যবহার করেন। তাহলে আপনি সব ধরনের ফিচার ব্যবহার করে কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

টিপস: সবার ক্ষেএে টাকা দিয়ে এইসব এপস কেনার মতো সামর্থ্য নাও থাকতে পারে। সেক্ষেএে আপনি যদি টাকা দিয়ে এই এপসটি কে ব্যবহার করতে না চান ৷

তাহলে আপনি গুগল থেকে Plotagon Story এর Mod ভার্সনটি ডাউনলোড করে একেবারে বিনামূল্যে ব্যবহার করতে পারবেন।

০২| FlipaClip

যদি আপনি একেবারে প্রফেশনাল ভাবে মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে চান। তাহলে আপনার জন্য আরও একটি কার্যকরি এপস আছে।

সেটির নাম হলো Flipa Clip. যার মাধ্যমে আজকের দিনে অনেকেই মোবাইল দিয়ে বেশ মানসম্মত কার্টুন ভিডিও তৈরি করে আসছে।

আপনি হয়ত শামিমা শ্রাবণীর কার্টুন ইউটিউব চ্যানেল চিনেন। আপনিও যদি শামিমা শ্রাবণীর কার্টুন ভিডিও বানাতে চান তাহলে এই অ্যাপ দিয়ে বানাতে পারবেন।

আপনি উপরোক্ত এপসটি তে যে যে ধরনের ফিচার গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। তার প্রায় বেশির ভাগ ফিচার দেখতে পারবেন এই FlipaClip নামক এপস এর মধ্যে।

যে ফিচার গুলো কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

তবে আপনি যদি এই এপসটি ব্যবহার করেন। তাহলে কিন্তুু কাজ করার ক্ষেএে বাড়তি কিছু সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। যেমনঃ

১। এই এপস এর মধ্যে আপনি পুরো একটি এনিমেশন ভিডিও কে Frame By Frame কাজ করতে পারবেন। অর্থ্যাৎ আপনি কখন কোন সিন কে এনিমেশন দিবেন ৷ তা ফ্রেম আকারে এনিমেটেড করিয়ে নিতে পারবেন।

২। এখানে আপনি Text যুক্ত করতে পারবেন ৷ অথবা আপনি চাইলে Draw নামক অপশনটি ব্যবহার করে নিচের ইচ্ছামতো ড্রো করে নিতে পারবেন।

৩। আপনার কার্টুন ভিডিও এর জন্য Audio Library সহো Audio Record নামক আরও একটি অপশন দেখতে পারবেন। যা একটি কার্টুন ভিডিও এর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

তো আপনি যদি উপরোক্ত সুবিধা গুলো ভোগ করতে চান। তাহলে অবশ্যই আপনার Flipa Clip নামক এপস টি ব্যবহার করা উচিত।

তাহলে আপনিও অন্যদের মতো কার্টুন ভিডিও মোবাইল দিয়ে তৈরি করতে পারবেন।

০৩| Animate It

আজকের আর্টিকেল এর আরও একটি চমৎকার এপস এর নাম হলো Animate It. যার মাধ্যমে খুব অল্প সময়ের মধ্যে আপনড অনেক মানসম্মত কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

অন্যান্য এপস গুলোর মতো এই এপসটিও বেশ জনপ্রিয়। প্রমান স্বরুপ আপনি যদি এই এপস এর গুগল রেটিং দেখেন। তাহলে দেখতে পারবেন যে, এই এপসের অনেক ভালো রেটিং রয়েছে।

যদি আপনি Animate It নামক কার্টুন তৈরি করার এপস টি ব্যবহার করেন। তাহলে আপনি এমন অনেক ফিচার আছে। যেগুলো আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। যেমনঃ

  1. Different Scene
  2. Character
  3. Multi-Objec
  4. Animation Frame

তবে এই এপসে বেশ কিছু প্রফেশনাল টুলস আছে। যেগুলো শুরুর দিকে আপনার বুঝতে অনেক অসুবিধা হতে পারে ৷ তাই বলে হতাশ হবেন না।

কারন যখন আপনি এই এপস টি ব্যবহার করবেন। তখন কোনো একটা সময়ে গিয়ে আপনি এই এপসে থাকা সকল ফিচার গুলো ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

Exta: এতো কিছু সুবিধার মাঝে এই এপসে আপনি বেশ কিছু অসুবিধা দেখতে পারবেন। যেমন, এখানে আপনি কোনো প্রকার নতুন Character, Audio, Object যুক্ত করতে পারবেন না।

০৪| Toontastic

আজকের আর্টিকেল এর সর্বশেষ এপস এর নাম হলো Toontastic. যে এপসটি ব্যবহার করলে আপনার মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার স্বপ্ন একেবারে পূরন হয়ে যাবে।

কেননা, অন্যান্য যে এপস গুলো নিয়ে আলোচনা করেছি। তার সবগুলো থেকে একেবারে সহজ একটি এপস হলো Toontastic.

তবে এই এপসে আপনি সব গুলো ফিচার ডিফল্ট হিসেবে পাবেন। যেগুলো তে আপনি টুকিটাকি কয়েক টা ক্লিক করার মাধ্যমে একটি এনিমেশন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

এছাড়াও এখানে আপনি 3D Drawing নামক একটি নতুন ফিচার দেখতে পারবেন। যা আপনার কার্টুন ভিডিও তৈরি করতে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
কার্টুন ভিডিও তৈরি করার সেরা কিছু সফটওয়্যার

উপরে আমি শুধু ৪ টি কার্টুন ভিডিও তৈরি করার এপস নিয়ে আলোচনা করেছি। তাই বলে আবার ভাইবেন না যে, মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য শুধুমাএ এই চারটি এপস ই রয়েছে।

যদি আপনি এমনটা ভেবে থাকেন। তাহলে বলবো আপনার ধারনা সম্পূর্ণ ভুল।

কারন আজকের দিনে মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করার জন্য আরও অনেক ধরনের এপস রয়েছে। যেমনঃ

  1. Draw Cartoons
  2. Animation Creator HD
  3. RoughAnimator
  4. Animation Desk
  5. Animate free
  6. TweenCraft

তো আপনি উপরে আলোচিত এপস গুলোর পাশাপাশি এই এপস গুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

আর আশা করি আপনি এই এপস গুলোর মাধ্যমে অনেক মানসম্মত কার্টুন ভিডিও তৈরি করে নিতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি নিয়ে আমাদের শেষকথা

আজকের আর্টিকেলে আমি কার্টুন ভিডিও তৈরি সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য শেয়ার করেছি। এবং কিভাবে আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে কার্টুন ভিডিও তৈরি করবেন।

সে নিয়ে Cartoon Video Maker Apps এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছি।

কার্টুন ভিডিও তৈরি করুন মোবাইল দিয়ে  আলোচনা গুলো আপনার অনেক ভালো লেগেছে। তবে আপনি যদি আরও কার্টুন ভিডিও তৈরি করার এপস সম্পর্কে জানতে চান। তাহলে নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।

আপনাদের কমেন্ট গুরুত্বসহকারে পড়া হয় এবং তার উত্তর দেওয়া হয়?

Leave a Comment