অন্যের কল লিস্ট চেক করবেন কিভাবে?- জানুন বিস্তারিত!!

আমাদের মাঝে মাঝেই প্রয়োজন হয় আমাদের কাছের কারোর কল লিস্টটা একটু ঘেটে দেখতে। জিনিসটা একটু বাজে বা অন্যরকম শোনালেও এটাই কিন্তু এখন সত্যি। যাই হোক আপনার প্রয়োজন পড়তে পারে সে নিয়ে আমাদের কোনো মাথাব্যাথা নেই। বরং আমরা আপনাকে এই কল লিস্ট চেক করার সমাধান সম্পর্কে আজকে বলতে যাচ্ছি।

আপনি যদি অন্যের কল লিস্ট চেক করা নিয়ে রীতিমতো হয়রান হয়ে যান তবে সমস্যা নেই। আজকেই আপনার এই সমস্যার সমাধান আশা করি আপনি পেয়ে যাবেন।

আর আমরা আজকেই এই সমাধান হিসাবে কিছু সফটওয়্যার এর নাম বলব যার মাধ্যমে আপনি কাজটি করতে পারবেন। তো আমাদের আলোচনার মূল বিষয়টি হলো অন্যের কল লিস্ট চেক করার সফটওয়্যার। চলুন শুরু করা যাক-

অন্যের কল লিষ্ট চেক করুন মুহুর্তেই
অন্যের কল লিষ্ট চেক করুন মুহুর্তেই

কল লিস্ট কি?

প্রথমেই আপনাকে এটা জানতে হবে যে কল লিস্টটা মূলত কি?

কললিস্ট মূলত একটি ডাটাবেজ। আর ডাটাবেজ এ কোনো ব্যক্তির ফোন কলের সকল তথ্য থাকে। এখানে আপনাকে কেউ কল করছে কিনা বা আপনি কাউকে কল করেছেন কি না সেই সব তথ্য থাকে। আর এক্সেস পেয়ে গেলে আপনি এইসব তথ্য জানবেন।

কল লিস্ট চেক এর প্রক্রিয়াটি দিয়ে কি কি করা যাবে?

১. আপনি সকল ইনকামিং এবং আউটগোয়িং কল এর নাম্বরগুলো জানতে পারবেন।

২. কল করার টাইম এবং কতক্ষণ কথা বলা হয়েছে তাও জানতে পারবেন।

আরও পড়ুন:

অন্যের কল লিস্ট চেক করার সফটওয়্যার –

এবার আমি আপনাদের এমন কিছু সফটওয়ার বা এপ্লিকেশন এর নাম বলবো, যেগুলো দিয়ে আপনি সহজেই কোন টাকা ছাড়াই যে কারো কল লিস্ট চেক করতে পারবেন আপনার যখন ইচ্ছা তখন।

কিছু কথাঃতার আগে একটি বিষয়ে সাবধান করে দেয়া জরুরি যে, বর্তমানে অনলাইন এবং ইউটিউবে এরকম অনেক অনেক ভুয়া পোস্ট বা ভিডিও আছে, যারা দাবি করে অমুক সফটওয়ার দিয়ে বা অমুক কাজ করলে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ড বা কারো কললিস্ট নিজের ফোন এ দেখতে পারবেন।

এটি কখনোই সম্ভব না। তাহলে? শুনেছি তো আমার অনেক বন্ধু বা বান্ধবি অন্যজনের কল লিস্ট চেক করতে পারে। হ্যাঁ, সেটা সম্ভব হবে তখনই যখন আপনি যার কললিস্ট চেক করবেন, তার ফোন বা সিমটি একবার হলেও আপনার কাছে ছিল। কারণ এই প্রক্রিয়াটি সফল করার জন্য আপনাকে ব্যবহারকারীর মোবাইল বা সিম কার্ডটি প্রয়োজন পরবে। অন্যথায় এটা ফ্রিতে সম্ভব নয়। এর জন্য টাকা লাগবে।

কোন আসামীকে শনাক্ত করার ক্ষেত্রে অনেক সময় পুলিশ বা প্রশাসনের প্রয়োজন পরে কারোর কল লিস্ট চেক করার । আর যদি বিষয়টি ফ্রিতেই করা সম্ভব হতো, তাহলে আর কাউকে কষ্ট করে পুলিশএর কাছে দৌড়াতে হতো না। তবে আপনি কল সেন্টার এর সাথে যোগাযোগ করে নির্দিষ্ট কিছু খরচের বিনিময়ে কারোর কল লিস্টের হার্ডকপি সংগ্রহ করতে পারেন। আশা করি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

সাধারণত আমরা যখন কারোর কললিস্ট চেক করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করি, স্বভাবতই সেই ব্যক্তি আমাদের চেনা জানা হয়ে থাকে। আর ঐ ব্যক্তির মোবাইল ফোনটি ইচ্ছে করলে আমরা কখনো না কখনো চেয়ে নিতেই পারি।

আরও পড়ুনঃ

১।Usage analyzer : এই লিঙ্ক এ ক্লিক করলেই আপনার ফোনে একটি এপ ইন্সটল হয়ে যাবে। তারপর লগইন করে সেখন থেকে আপনি দেখতে পাবেন, সেই ইউজারের পুরো কল লিস্ট। অর্থাৎ সে কার সাথে কথা বলেছে, কতক্ষণ আগে কথা বলেছ, কতক্ষণ ধরে কথা বলেছে এবং যাবতীয় সব তথ্যাদি। তাছাড়া এর মাধ্যমে আপনি এটিও জানতে পারবেন, ইউজার কার কার সাথে এস এম এস করেছে সবকিছু। তবে বন্ধুরা মনে রাখবেন, এই এপ্লিকেশনটি কিন্তু আপনি যার কল ডিটেইলস চেক করতে চান, তার ফোনেই ইন্সটল করতে হবে।

এখানে আমি একটি এপ্লিকেশন এর নাম বললাম। আপনি ইচ্ছে করলে প্লে স্টোর থেকে এরকম আরো অনেক এপ্লিকেশন খুব সহজেই ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারেন। তবে মনে রাখবেন, যাই করুন না কেন এক্ষেত্রে আপনার প্রিয়জনের মোবাইল ফোনটি অবশ্যই প্রয়োজন হবে। আর যদি কোন এপ সেটা অস্বীকার করে, তাহলেই বুঝবেন সেটা সত্যিকার কাজ করেবে না বা একটি নকল এপ্লিকেশন যা ভুয়াও বলতে পারেন আপনি।

গ্রামীনফোন (জিপি) কল হিস্টরি চেক করার উপায়ঃ

এবার আমি আপনাদের যে উপায়টি দেখাবো, তার জন্য কিন্তু অবশ্যয় আপনার প্রিয়জনকে গ্রামীনফোন ইউজার হতে হবে। আর তা না হলে এই সিস্টেমটি কাজে আসবে না। তাহলে শুরু করা যাক।

১। প্রথমেই আপনার মোবাইলের ব্রাউজারে গিয়ে টাইপ করুন Gp connect. তারপর সবার উপরের সাইট টিতেই ক্লিক করে ফেলবেন। এNo description available.রপর নিচের ছবির মত একটি উইন্ডো দেখতে পাবেন।

২। সেখান থেকে ছবিতে দেখানো My connect Account এ ক্লিক করবেন। এরপরনিচের ছবিতে দেখানো নিয়মে আপনার প্রিয়জনের মোবাইল নম্বরটি লিখুন এবং সাইন ইন এ প্রেস করুন।
No description available.

.৩। সাইন ইন এ প্রেস করলেই দেখবেন সেখানে একটি চার ডিজিটের কোড চাইবে। যেটি আপনি আপনার প্রিয়জনের মোবাইল থেকে নিয়ে নিবেন।
No description available.

৪। তারপর কোড ফিল আপ করে আপনি যখনই Verify code এ ক্লিক করবেন, আপনাকে নিচের ছবির মত একটি উইন্ড প্রদর্শন করা হবে।
No description available.

৫। এরপর আপনি সেখান থেকে Password ক্লিক করবেন এবং একটি পাসওয়ার্ড দিয়ে দিবেন।
No description available.

৬। পাসওয়ার্ড দেয়ার পর আপনি নিচের ছবির মত আরেকটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন। সেখান থেকে Continue with My connect account এ প্রেস করুন।
No description available.

৭। এখানে ক্লিক করলে আপনাকে আবার আগের যায়গায় নিয়ে যাওয়া হবে। সেখান থেকে ইমেইল এ প্রেস করে একটি ইমেইল দিয়ে দিবেন । তবে তার আগে সেখানে আপনাকে আরেকবার লগ ইন করতে হবে। লগ ইন করার পর আপনার প্রিয়জনের ফোনে আরেকটি কোড যাবে। সেই কোডটি যেভাবে পারুন সংগ্রহ করে ফেলুন।
No description available.

৮। এই কোড একবার সংগ্রহ করলে ভবিষ্যতে আর আপনার প্রিয়জনের ফোনের কোন প্রয়োজন হবে না। কেননা এরপর থেকে সকল কোড আপনার এড করা ইমেইল এ চলে আসবে।

৯। এরপর আপনার ইমেল ভেরিফিকেশন শেষ করবেন। তারপর আপনি যে কাজটি করবেন তা হলো, আপনার ফোনে মাইজিপি এপ টি ইন্সটল করে নিবেন। আর আগে থেকে থাকলে তো কোন কথাই নেই।

১০। তারপর আপনাকে মাইজিপি একাউন্টে আপনার ইমেইল দিয়ে রেজিস্টার করতে হবে।

১১। এরপর দেখতে পাবেন, আপনার প্রিয়জন এর ফোন নাম্বারটি মাইজিপি এপ এ রেজিস্টার হয়ে গেছে। তারপর সেখান থেকে নিচের ছবিতে দেখানো থ্রী ডট মেনুতে ক্লিক করুন।
No description available.

১২।তারপর নিচের ছবিতে দেখানো History তে ক্লিক করুন।,
No description available.

১৩। সেখানে ক্লিক করে আপনি call histore তে যেয়ে সহজেই ওই ফোনের সকল কল লিস্ট দেখতে পাবেন।

বন্ধুরা, প্রশ্ন করতে পারেন কল ইমেইল সেভ করার লাভ কী? আমি তো সোজাসুজি মাইজিপি এপ এ রেজিস্টার করতে পারতাম। তাদের জন্য বলছি, ইমেইল সেভ করার ফলে আপনি সহজেই যখন তখন যেকোন ফোন ইউস করেই আপনার প্রিয়জনের কল লিস্ট চেক করতে পারেন। আর মাই জিপি এপ ভুল বশত আনইন্সটল হয়ে গেলেও পুনরায় আপনি রিইনসটল করে কাজ করে নিতে পারবেন। আশা করি বুঝাতে পেরেছি।

পরিশেষে-

একটি কথা বলতে চাই, কারো অনুমতি না নিয়ে কল লিস্ট চেক করা ঠিক নয়। আর আপনার সম্পর্কের মাঝে যদি কোন সন্দেহ থেকে থাকে, তাহলে তা সরাসরি কথা বলে সুরাহা করে নেয়াটাই উত্তম। কেননা এর মাধ্যমে আপনি জানতে পারলেন, সে কার সাথে কথা বলছে, তবে কি কথা বলছে তা কিন্তু আপনার অজানা। তাই সন্দেহ কিন্তু রয়েই যায়। যাই হোক, আমি আমার অভিমত প্রকাশ করলাম। বাকিটা সিন্ধান্ত আপনার। আমাদের এই আর্টিকেলটি ভালো লাগলে শেয়ার দিতে ভুলবেন না। আমাদের অন্য আর্টিকেল পড়ে আসতে পারেন আরো কিছু জানতে- অনলাইন কাজ। ধন্যবাদ।

Leave a Comment